আনুশকা সাড়ে ৩ বছর ধরে মাংস খায়নি কেনো !!!

আনুশকা সাড়ে ৩ বছর ধরে মাংস খায়নি কেনো

আনুশকা সাড়ে ৩ বছর ধরে মাংস খায়নি কেনো সেটা কি জানতে ইচ্ছা করছে? চলুন তাহলে জেনে নেই কেনো আনুশকা পশুর গোশত খাওয়া থেকে নিজেকে দূরে রেখেছে আর হয়ে গেছে নিরামিষাশী অভিনেত্রী।

আনুশকা সাড়ে ৩ বছর ধরে মাংস খায়নি কেনো !!!

আনুশকা সাড়ে ৩ বছর ধরে মাংস খায়নি কেনো
আনুশকা সাড়ে ৩ বছর ধরে মাংস খায়নি কেনো

আনুশকা জীবনের প্রথম থেকেই নিরামিষাশী ছিলেন না। তার বয়স এখন ৩০ এর উপরে। জানা গেছে যে গত সাড়ে ৩ বছর ধরে তিনি কোনো পশুর গোশত বা মাংস খান নি।

কারন হচ্ছে তিনি একটি পশুদের অধিকার রক্ষার সংস্থার সাথে যুক্ত আছেন। এই সংস্থার নতুন একটি অভিযানের প্রচারের সময় তিনি জানা যে তিনি একজন নিরামিষাশী।

অনুশকা শর্মা আরো জানন যে তিনি নিরামিষাশী হবার যেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেটা তার জীবনের সেরা সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে একটি।

অনুশকা শর্মা মনে করেন যে নিরামিষাশী হবার পরে তিনি আগের থেকে আরো তরতাজা ও চনমনে হয়েছেন। তার খাবারের জন্য কোনো প্রানীকে কষ্ট পেতে হচ্ছে না, তাই তিনি নিরামিষাশী হয়ে খুশি।

তবে আসেলেই কি তারা পশুদের কষ্ট দেয় যারা পশুর মাংস খায়? এমন তো না যে কোনো মানুষ যদি পশুর মাংস না খায় তাহলে সেই পশুটা সারা জীবন বেঁচে থাকবে, কখনো সেই পশুকে মৃত্যুর স্বাদ নিতে হবে না।

ভিন্ন ভিন্ন মানুষের ভিন্ন ভিন্ন চিন্তা ভাবনা। তবে আমাদের শরীরে প্রাণিজ প্রোটিনের দরকার আছে। সেটা কথা থেকে আসবে যদি হালাল পশুর মাংস না খাই আমরা? অবশ্যই কোনো স্বাভাবিক মানুষ মাংসাশী প্রানীর মাংস খায় না। খেলে তৃণভোজী প্রাণী প্রানীর মাংসই খায়।

স্বাস্থকর খাবার না খাওয়া নিয়ে কতো কিছু হয়, আর অন্য দিকে মানুষ যে রাস্তাঘাটে কতো অস্বাস্থকর খাবার ( সিগারেট ) খায়, সেটা নিয়ে তো খুব একটা প্রচার প্রচারণা দেখা যায় না।

আমার কোনো কথায় কেউ কষ্ট পেলে মাফ চেয়ে নিচ্ছি। কাউকে কষ্ট দেবার উদ্দেশ্যে আমরা কিছু বলিনি। আরো খবর পেতে Bangla News Paper ওয়েবসাইটে প্রতিদিন ভিজিট করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *