জীবনের প্রথম চুমুর গল্প শ্রীলেখা মিত্র নিজের মুখেই বললেন

জীবনের প্রথম চুমুর গল্প শ্রীলেখা মিত্র নিজের মুখেই বললেন

জীবনের প্রথম চুমুর গল্প শ্রীলেখা মিত্র নিজের মুখেই বললেন আর সেই সাথে উঠে এসেছে যে শ্রীলেখা মিত্র কলেজ জীবন থেকেই প্রেম করতেন। শ্রীলেখা মিত্রর প্রেম যে কতো গভীর ছিলো সেটা তার বয়ফ্রেন্ডের সাথে চুমু খাওয়ার গল্প শুনলেই বোঝা যায়। চলুন তাহলে জেনে নেই শ্রীলেখা মিত্রর প্রথম প্রেমের গল্প যা তিনি নিজের মুখেই স্বীকার করেছে।

জীবনের প্রথম চুমুর গল্প শ্রীলেখা মিত্র নিজের মুখেই বললেন

জীবনের প্রথম চুমুর গল্প শ্রীলেখা মিত্র নিজের মুখেই বললেন
জীবনের প্রথম চুমুর গল্প শ্রীলেখা মিত্র নিজের মুখেই বললেন

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র তার জন্মদিনের দিন নিজের জীবনের কিছু বিশেষ মুহূর্তের কথা গণমাধ্যমের সামনে খোলামেলা ভাবে বলেন। শ্রীলেখা মিত্রর জীবনের বিশেষ মুহূর্তের মধ্যে ছিলো শ্রীলেখা মিত্রর প্রথম চুমু খাওয়ার কথা।

শ্রীলেখা মিত্র কলেজে পড়া অবস্থায় একজনের সাথে প্রেম করতেন। শ্রীলেখা মিত্রর প্রেমিকের সাথে শ্রীলেখা মিত্র ক্যাডবেরি চকলেট ভাগ করে খেতেন। কিন্তু অন্য সবার মতো দুই টুকরো করে ভাগ করে খেতেন না তারা!

শ্রীলেখা মিত্র ক্যাডবেরি চকলেটের এক পাশ থেকে খেতেন আর শ্রীলেখা মিত্রর প্রেমিক অন্য পাশ থেকে খাওয়া শুরু করতো। তারপর চকলেট খেতে খেতে তাদের দুজনের মুখ যখন কাছে কাছি চলে আসে তখন তারা একে অপরকে চুমু দেয়!

ঐ সময়ে কলেজ পড়ুয়া মেয়ে শ্রীলেখা মিত্র যে কোতোটা আবেদনময়ী মেয়ে ছিলো আর শ্রীলেখা মিত্র মন জয় করা সেই ছেলেটি যে কতোটা রোমেন্টিক ছিলো সেটা নিশ্চই বুঝতে পারছেন?

ক্যাডবেরি চকলেট বেশ লম্বা হয়, তাই দুজন দুইপাশ থেকে খেতে পারে। নিচে শ্রীলেখা মিত্রর খাওয়া ক্যাডবেরি চকলেট দেখতে কেমন সেটার একটা নমুন দেয়া হলো যেনো তাদের বুঝতে সুবিধা হয় যারা ক্যাডবেরি চকলেট সম্পর্কে তেমন ভালো জানেন না।

শ্রীলেখা মিত্রর প্রেমিকের সাথে খাওয়া ক্যাডবেরি চকলেট গুলো এই রকম
শ্রীলেখা মিত্রর প্রেমিকের সাথে খাওয়া ক্যাডবেরি চকলেট গুলো এই রকম

এছাড়া শ্রীলেখা মিত্র অনেক সাহসী মেয়ে। কারন উপরে শ্রীলেখা মিত্রর ছবি তো দেখতেই পাচ্ছেন। বুঝতেই পারছেন বাঙালি মেয়ে হয়ে ও কতোটা সাহসী পোশাক পড়েছেন তিনি, তাই তো তাকে সাহসী মেয়ে বললাম।

শ্রীলেখা মিত্রর বয়স এখন ৪৩ বছর হলে ও তিনি এখনো নিজের সাহসী পোশাক আর সাহসী অভিনয়ের কারনে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। এটাই স্বাভাবিক, কারন সবাই তো সাহসী অভিনয় করা নাইকাদের অভিনয় দেখতে খুব পছন্দ করে। ঠিক বলছি তো?

কলকাতার নাইকাদের খবর আরো পেতে প্রতিদিন ভিজিট করুন Bangla News Paper ওয়েবসাইটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *