সৌদি আরবে রোজা শুরু বৃহস্পতিবার থেকে ( ২০১৮ )

সৌদি আরবে রোজা শুরু বৃহস্পতিবার থেকে ২০১৮

সৌদি আরবে রোজা শুরু বৃহস্পতিবার থেকে ২০১৮ সালের। কারন আজ ১৫ মে মঙ্গলবার সৌদি আরবে রমজান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। তাই ১৭ মে বৃহস্পতিবার থেকে সৌদি আরবে রমজান মাস শুরু হবে। তার মানে আমাদের দেশে শুক্রবার থেকে রোজা শুরু হতে পারে। চলুন বিস্তারিত জেনে নেই।

সৌদি আরবে রোজা শুরু বৃহস্পতিবার থেকে ( ২০১৮ )

সৌদি আরবে রোজা শুরু বৃহস্পতিবার থেকে ২০১৮
সৌদি আরবে রোজা শুরু বৃহস্পতিবার থেকে ২০১৮

যেহেতু আজকে সৌদি আরবের আকাশে চাঁদ দেখা যায় নি তাই আগামী ১৭ মে ২০১৮ থেকে শুরু হবে সৌদি আরবে রোজা রাখা। আর আগামীকাল থেকে তারাবীহ নামাজ শুরু হবে সৌদি আরবে।

আমাদের দেশের ভৌগলিক অবস্থানের কারনে সৌদি আরবের রমজান মাস শুরুর একদিন পরে শুরু হয় রমজান মাস। তাই আমাদের দেশে রমজান মাসের রোজা শুক্রবার থেকে শুরু হতে পারে, আর হবার কথা।

তাহলে সৌদি আরবে আগামীকাল রমজান মাসের চাঁদ উঠবে আর আগামীকাল রাত থেকেই তারাবীহ নামাজ শুরু হবে।

আর আমাদের দেশে ১৭ মে বৃহস্পতিবার রমজান মাসের চাঁদ ওঠার কথা, যেহেতু সৌদি আরবে আগামীকাল উঠবে। সেহেতু আমাদের বাংলাদেশে বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুরু হবে তারাবীহ নামাজ।

সব মুসলিম দেশগুলোতে রমজান মাসের জন্য প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। আমাদের ও উচিত রমাজন মাসের জন্য প্রস্তুত হওয়া। যারা বাসায় ইফতার বানান তাদের উচিত আগামীকাল ইফতার বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় বাজার করে রাখা।

আর আগামীকাল সম্ভব না হলে অবশ্যই বৃহস্পতিবারের মধ্যে ইফতারের বাজার সেরে ফেলতে হবে। কারন শুক্রবার থেকেই রোজা শুরু হবে আল্লাহ যদি চান।

আর রোজা রেখে বাজার করা অনেক কষ্টকর হবে। তাই মাহে রমজান মাস ২০১৮ শুরু হবার আগেই আমাদের ইফতারের জন্য প্রয়োজনীয় বাজার করে ফেলা উচিত।

সবাই চেষ্টা করবেন এবার রমজান মাসে ইফতারের সময় প্রচুর পরিমান পানি পান করতে। অন্যভাবে বলতে গেলে এবার ইফতারে শরবতের পরিমান বাড়িয়ে দিতে হবে।

কারন এবার ২০১৮ সালে রমজান মাস শুরু হয়েছে গরমের দিনে। তাই অবশ্যই অবশ্যই প্রচুর পরিমান পানি পান করতেই হবে ইফতারের সময়।

সেহেরীর সময় ও যঠেষ্ট পরিমান পানি পান করতে হবে। যদি পানি ভালো না লাগে তাহলে শরবত খেতে পারেন, তবে তরল জাতীয় খাবার বেশি বেশি খেতেই হবে। শশা, তরমুজ, এগুলোতে পানির পরিমান অন্য ফলগুলোর চেয়ে বেশি। তাই ইফতারে বেশি বেশি শশা ও তরমুজ খান।

এমনতেই গরমের দিন, আবার দিন বড়। বেশি বেশি পানি বা তরল জাতীয় খাবার না খেলে অসুস্থ হয়ে পরতে পারেন। আর সবাই খেয়াল রাখবেন যেনো ইফতারে ভাঁজা পোড়া কম থাকে আর ফল বেশি থাকে।

ভাঁজা পোড়া তো কখনোই শরীরের জন্য ভালো না, আর ইফতারে তো আরো আগেই না। তবে এ কথা বলে লাভ নেই, কারন আমাদের দেশের চপ, বেগুনি, পেঁয়াজু, এগুলো দিয়ে ইফতার করাকে একটা নিয়মের মতো বানিয়ে ফেলেছে।

Bangla News Paper ওয়েবসাইটে প্রতিদিন ভিজিট করুন সবশেষ খবর সবার আগে পেতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *